ইয়াসিন আবু বকর: পশ্চিমা দুনিয়ায় একমাত্র ইসলামি অভ্যুত্থান চেষ্টা করেছিলেন যিনি

0

ইয়াসিন আবু বকর সম্পর্কে জানতে ত্রিনিদাদের কারো কাছে জানতে চান, উত্তরটা নির্ভর করছে কাকে প্রশ্ন করছেন তার ওপরে। কারো কাছে তিনি একজন সম্মানিত ধর্মীয় নেতা, কারো কাছে ক্লান্তিহীন সমাজকর্মী আর কেউ কেউ হয়তো বলবে তিনি একজন মাফিয়া গডফাদার।

ত্রিনিদাদের রাজধানী পোর্ট অফ স্পেনে তার প্রতিষ্ঠিত মসজিদে সাক্ষাতের অপেক্ষায় বসে থাকার সময় সংবাদদাতা কলিন ফ্রিম্যান বোঝার চেষ্টা করছিলেন যে, এই তিনটি বক্তব্যের কোনটি তার সঙ্গে মেলে। শুক্রবার মধ্যাহ্নের খাবারের পর অন্যান্য দিনের মতো সেদিনও অনেকেই তার সহায়তার জন্য এসেছেন।

তাদের অনেকেই ধর্মীয় কোন বিষয় বা বিয়ের মতো বিষয়ে তার নির্দেশনা পেতে এসেছেন। কখনো কখনো চুরি হয়ে যাওয়া গাড়ি ফেরত, ঋণের ব্যবস্থা করা বা ত্রিনিদাদের বস্তি এলাকার অপরাধী চক্রগুলোর সঙ্গে বিরোধ মেটাতেও তার কাছে সহায়তা চাওয়া হয়।

তিনি বলছেন, ”সমস্যা সমাধানের একটি বিকল্প ব্যবস্থা।” তিনি যেই হোন না কেন, আবু বকর কোন কাজ অর্ধেক করে করেন না। ১৯৬৯ সালে ত্রিনিদাদের প্রথম মুসলিম ধর্ম গ্রহণকারীদের একজন ছিলেন পুলিশের সাবেক এই কর্মকর্তা। তখন একজন মিশরীয় ধর্মপ্রচারক এই দ্বীপে সফরে আসেন। খৃস্টান ধর্মের তুলনায় ইসলাম ধর্মকে আবু বকরের কাছে বেশি আকর্ষণীয় বলে মনে হয়, যে ধর্মকে তিনি দেখে আসছেন সেই সময় থেকে, যখন তার দেশ একটি দাস কলোনি হিসাবে ছিল। তবে তিনি শুধুমাত্র বসে কোরান পড়ার মধ্যে সন্তুষ্ট ছিলেন না।

Share.

About Author

Leave A Reply