শিক্ষার্থীদের ধৈর্য ধরার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, জীবিকা নয়, জীবনের জন্যই শিক্ষা প্রয়োজন। এই বাস্তবতা শিক্ষার্থীদের উপলব্ধি করতে হবে। করোনা সংক্রমণের সামগ্রিক পরিবেশ অনুকূল হলেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে।
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আজ শনিবার ময়মনসিংহের ত্রিশালে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত ‘বঙ্গবন্ধু: বাঙালির চেতনার বাতিঘর’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এমন কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে তিনি বলেন, বিভিন্ন দেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হয়েছে। এতে বহু জায়গায় সংক্রমণ বেড়েছে। তাই দেশে নিবিড়ভাবে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রী।

বিএনপি নেতাদের দৃষ্টিশক্তিতে নেতিবাচক রাজনীতির ঘন কুয়াশা জমেছে উল্লেখ করে সরকারি দলের সাধারণ সম্পাদক বলেন, সরকারের সাহসী ও ভালো উদ্যোগ দেখতে পান না। তাঁরা পূর্ণিমার রাতে অমাবস্যার আঁধার দেখেন, গভীর হতাশায় মাঝেমধ্যে হাঁক ছাড়েন। তিনি আরও বলেন, ‘বিভেদের দেয়াল চাই না। বিভেদ আমাদের পিছিয়ে দেবে, সম্প্রীতি এগিয়ে দেবে। বিভেদের দেয়াল ভেঙে সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্যের সেতুবন্ধই দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে সোনালি অর্জনের নবদিগন্তে।’

করোনা রোধে সচেতনতা ও সতর্কতা বাড়ানোর ওপর গুরুত্বারোপ করে সড়ক পরিবহনমন্ত্রী বলেন, কোনো ধরনের শিথিলতা মোটেই কাম্য নয়।
বক্তব্য দেন স্থানীয় সাংসদ রুহুল আমিন মাদানি, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হারুন অর রশিদ, কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান ও অন্য শিক্ষকেরা। কোনো অবস্থায় বিশ্ববিদ্যালয়কে দলীয়করণ না করতে শিক্ষকদের প্রতি আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের।

About Author

arunalo

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *